যে ফল ফ্রিজে রাখা ঠিক নয়

0 1

‘ফল খেলে বল বাড়ে’ এ কথা সবারই জানা। পুষ্টি ও স্বাদের দিক থেকে ফল খেতে আমরা সবাই ভালোবাসি। ফল আমাদের দেহে অনেক উপকার করে থাকে। তবে কথা হলো এ লোভনীয় জিনিসটি পঁচনশীল। একটা ফল গাছ থেকে পেরে বেশিক্ষণ রাখা যায় না। রাখলে পঁচে যায়। এজন্য অনেকেই ফ্রিজে ফল রেখে দেন। তাদের ধারণা ফ্রিজে রাখলেই ফল টাটকা থাকবে। কিন্তু কিছু ফল আছে যেগুলো ফ্রিজে রাখলে অতিরিক্ত মজে আরও বিষাক্ত হয়ে ‍উঠতে পারে। তাহলে জানুন কোন ফলগুলো ফ্রিজে রাখা ঠিক নয়।

লেবু: লেবু জাতীয় ফলে অ্যাসিডের পরিমাণ খুব বেশি। অতিরিক্ত ঠান্ডায় সেগুলো খারাপ হয়ে বিষাক্ত হয়ে উঠতে পারে। সেজন্য কমলা, মাল্টা, লেবু ফ্রিজে রাখবেন না।

পেঁপে: আধা পাকা পেঁপে পেরে রেখেছেন, পাকার জন্য যদি তা ফ্রিজে রাখেন তাইলে হিতে বিপরীত হবে। তাড়াতাড়ি পাকাতে চাইলে বরং গরম কোনো জায়গায় বা গরম কোনো কিছুর মধ্যে রাখুন।

কলা: কলা যেহেতু গরম তাপমাত্রায় ফলে তাই গরমেই এটি ভালো থাকে । স্বাভাবিক তাপমাত্রায় থাকলে পাকেও তাড়াতাড়ি৷ আর ফ্রিজে কলা রাখলে পাকতে দেরি হয়। সেই সঙ্গে কলার কোষের গঠনও নষ্ট হয়ে সেটি বিষাক্ত হতে পারে।

শশা: অতিরিক্ত ঠান্ডায় শশা রাখবেন না। এতে শশার খোসা নষ্ট হয়ে যায়। শশা অতিরিক্ত গরমে রাখাও ঠিক নয়।

তরমুজ: তরমুজ ফ্রিজে রাখলে খেতে মজা লাগলেও এতে তরমুজের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়৷ তরমুজ তাই যতক্ষণ না কাটা হচ্ছে ততক্ষণ ফ্রিজের বাইরে রাখাই ভালো।

আপেল: আপেল ফ্রিজে নয়, বাইরে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রাখুন, এতে ২ সপ্তাহ পর্যন্ত ভালো থাকবে। আপেল ফ্রিজে রাখলেই শুকিয়ে গিয়ে সব খাদ্যগুণ নষ্ট হয়ে যাবে।

নাশপাতি: ফ্রিজে রাখলে নাশপাতি নরম হয়ে মজে যেতে পারে। যা খেলে পেটের সমস্যাও দেখা দিতে পারে। এ কারণে এটি স্বাভাবিক তাপমাত্রাতেই রাখুন।